চার দিন পর ঘুম ভাঙলো শাবি শিক্ষক সমিতির

প্রকাশিত: 8:02 PM, January 26, 2016

চার দিন পর ঘুম ভাঙলো শাবি শিক্ষক সমিতির

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক অধ্যাপক ড. আরিফুল ইসলামের প্রাইভেট কারের নিচে চাপা পড়ে দু’জন নিহত হয়েছিলেন শনিবার। দুর্ঘটনার পর থেকেই এ নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা।

তবে এই দুর্ঘটনার চার দিন পর ঘুম ভেঙ্গেছে শাবি শিক্ষক সমিতির। মঙ্গলবর এক বিজ্ঞপ্তিতে দু’জন নিহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ।

মঙ্গলবার শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মহিবুল আলম সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ শোক প্রকাশ করেন।

বিজ্ঞপ্তিতে নিহতদের পরিবারকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ক্ষতিপূরণ প্রদান করবে বলে আশা প্রকাশ করা হলেও দায়ী শিক্ষকের বিচার বা শাস্তির বিষয়ে কিছুই উল্লেখ করা হয় নি। শিক্ষককের খামখেয়ালিপনার বিষয়টিও এড়িয়ে যাওয়া হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

যদিও সোমবারই ক্যাম্পাসে মানববন্ধন ও মিছিল করে শিক্ষক আরিফুল ইসলামের শাস্তি দাবি করেছে শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষক সমিতির বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় , গত ২৩ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কিলোতে গাড়ি চাপায় ২ জন নিহত ও তিনজন আহত হওয়ায় ঘটনা অত্যন্ত মর্মান্তিক। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকল সদস্য অত্যন্ত মর্মাহত এবং গভীরভাবে শোকাহত ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরোও জানানো হয়, স্বজন হারানোর বেদনা কোনোভাবেই পূরণ করা সম্ভব নয়। শিক্ষক সমিতি আশা করে শাবি পরিবার ক্ষতিগ্রস্থদের সহযোগীতায় সবসময়ই থাকবে ।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার দুপুরে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক আরিফুল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের এক কিলোমিটার সড়কে নিজের নতুন গাড়ি চালানো শিখছিলেন। এসময় চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে গাড়ির নিচে চাপা পড়ে নিহত হন গিয়াস উদ্দিন (৭০) ও তার ভাতিজা আতাউর রহমান (৫০)। এ সময় আতাউর রহমানের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে রাহিবা রহমান (১৪) গুরুতর আহত হন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 20 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ