সাফে সোনা জয় সীমান্ত-শিলার

প্রকাশিত: 2:51 AM, February 8, 2016

সাফে সোনা জয় সীমান্ত-শিলার

আগের দিন ব্রোঞ্জ জিতে মোল্লা সাবিরার হাত দিয়ে পদকের খাতা খুলেছিল বাংলাদেশ। দক্ষিণ এশীয় গেমসে ব্রোঞ্জ পদক মোটেও বড় সফলতা না হলেও এই পদকের তাৎপর্য ছিল। বিকালে পারফরম্যান্সে তার সেই অর্জনকে ছাড়িয়ে গেছেন কুস্তিগির রেশমা আক্তার। ভারতকে হারিয়ে গেমসে বাংলাদেশের প্রথম রূপা এনে দিয়েছেন তিনি। গতকাল সকালে রেশমার পাশে নাম লেখান মহিলা ভারোত্তোলক ফুলমতি চাকমা। একটু পরে এদের ছাপিয়ে যান মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। ৬৩ কেজি ওজন শ্রেণিতে তার হাত ধরেই গেমসে প্রথম স্বর্ণ পায় বাংলাদেশ। বিকালে পুলে ঝড় তোলেন মাহফুজা খাতুন শিলা। ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে দিনে দ্বিতীয় স্বর্ণ এনে দেন এই সাতারু। স্বর্ণ জয়ের মাধ্যমেই দিনকে নারীদের রাজত্বই বজায় রাখলেন। পরে সন্ধ্যার পর ৬৯ কেজি ওজন শ্রেণিতে রৌপ্য পদক জেতেন আরেক নারী সাথী সুলতানা।
মেয়েদের কুস্তি এবং ভারোত্তোলন গেমসের ইতিহাসে এবারই প্রথম যোগ হয়েছে। এই দুটি ডিসিপ্লিনে মেয়েরা সফলই বলা যায়। শুধু দুই ডিসিপ্লিন বললে ভুল হবে, পদকের লড়াইয়ে এগিয়ে মেয়েরাই। আগের দিন পাওয়া একটি রূপা ও আটটি ব্রোঞ্জের পাঁচটিই জিতেছিল মেয়েরা। গতকাল পদকের লড়াইয়ের দ্বিতীয় দিনে বাংলাদেশ দুটি স্বর্ণ, একটি রৌপ্য ও ৬টি ব্রোঞ্জ জিতেছে। এর বেশির ভাগই এসেছে মেয়েদের হাত ধরে। এসএ গেমসে অংশ নেয়ার আগে গত বছরের অক্টোবরে ভারতের পুনেতে অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ ভারোত্তোলনে স্বর্ণপদক জয় করেছিলেন সীমান্ত। ওই আসর থেকে একটি রূপাও পেয়েছিলেন তিনি। এবার দক্ষিণ এশিয়ার সেরা মহিলা ভারোত্তোলকের খেতাবও জিতে নিলেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। তার পথেই বিকালে সোনা জেতেন জলকন্যা মাহফুজা খাতুন শিলা। ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্টোকে স্বর্ণ জিতে নিজের প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে গেলেন। তাদের দুই স্বর্ণের আগে দিনের প্রথম রৌপ্য জিতেছেন মহিলা ভারোত্তোলক ফুলমতি চাকমা। সবাইকে চমকে দিয়ে ৫৮ কেজি ওজন শ্রেণিতে পদক জিতেন আলোচনার বাইরে থাকা এই প্রমিলা ভারোত্তোলক। স্বর্ণ রূপার বাইরে পাওয়া সাতটি ব্রোঞ্জের মধ্যে তিনটি পেয়েছে মেয়েরা। এর দুটি এসেছে কুস্তি ও একটি টেবিল টেনিস থেকে। মেয়েদের ৫৩ কেজি ওজন শ্রেণিতে নাসিমা আক্তার ও ৫৮ কেজি ওজন শ্রেণিতে তানজিনা মাসুদি এবং পুরুষদের ফ্রি স্টাইল ৮৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে রেহমান মোহাম্মদ ব্রোঞ্জ পদক জয় করেছেন। টেবিল টেনিসে মহিলা দলগত ইভেন্টে ব্রোঞ্জটি এসেছে। এর বাইরে সাঁতারে মাহফিজুর রহমান সাগর ১৫০০ মিটার ও ৫০ মিটার ফ্রি স্ট্রাইলে দুটি ব্রোঞ্জ জেতেন। আগের দিনও সাগর ২০০ মিটার ব্যাক স্ট্রোক ও ৪০০ মিটার রিলে ইভেন্টে একই পদক জিতেছিলেন। এ ছাড়া আগের আসরে স্বর্ণ জয়ী ভারোত্তোলক হামিদুল ইসলাম ৭৭ কেজি ওজন শ্রেণিতে ব্রোঞ্জ জেতেন। আজ বাংলাদেশের পদক জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে আরচারিতে। কম্পাউন্ড ও রিকার্ভে দলগত দুটি ইভেন্টেই ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। শিলংয়ে এই দুটি ইভেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। সাঁতারেও আশার আলো দেখাচ্ছেন স্বর্ণ কন্যা মাহফুজা খাতুন শিলা। গতকাল ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে স্বর্ণ জয়ী এই সাঁতারু আজ পুলে নামবেন তার প্রিয় ইভেন্ট ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইলে।

[the_ad id=”312″]

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 17 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ