ক্রিকেটার শাহাদাত দম্পতির বিচার শুরু হচ্ছে

প্রকাশিত: 8:17 PM, February 4, 2016

ক্রিকেটার শাহাদাত দম্পতির বিচার শুরু হচ্ছে

নিজ বাসায় শিশু গৃহকর্মী হ্যাপিকে নির্যাতনের মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার শাহাদাত হোসেন রাজিবও তার স্ত্রী জেসমিন জাহান নিত্যের জামিন বিচারিক আদালতে মঞ্জুর করা হয়েছে। সেইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে দাখিল করা চার্জশিট গৃহিত হয়েছে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল- ৫এর বিচাক তানজিনা ইসমাইল আগামি ২২শে ফেব্রুয়ারি চার্জ শুনানির জন্য তারিখ ধার্য্য করেন। গত ২৯শে ডিসেম্বর মঙ্গলবার ঢাকার সিএমএম আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) শফিক আহমেদ। মঙ্গলবার মামলাটির ধার্য্য তারিখে চার্জশিট আদালতে উপস্থাপন করার পর ঢাকার মহানগর হাকিম মো. নুরু মিয়া তাতে স্বাক্ষর করেন। সেইসঙ্গে মামলার বিচার কাজ শুরুর জন্য অভিযোগপত্রটি  সিএমএম বরাবর  পরবর্ওী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। অভিযোগপত্র গৃহীত হওয়ায় এখন তাদের বিচার শুরু হবে। আসামিরা এদিন আদালতে হাজিরা দেয়। পরে মামলাটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকার সিএমএম আদালত। [the_ad id=”253″]
মামলার চার্জশিটে শাহাদাত হোসেন ও তার স্ত্রী নিত্য শাহাদাতকে আসামি করা হয়েছে। তারা জামিনে আছেন। গত ৮ই ডিসেম্বর শাহাদাতকে ৩১শে মার্চ পর্যন্ত জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। অন্যদিকে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল¬ার আদালত গত ১লা ডিসেম্বর একমাসের জন্য পর্যন্ত নিত্যকে জামিন দেন।
শাহাদাত গত ৫ই অক্টোবর সোমবার ঢাকার সিএমএম আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত তার জামিনের আবেদন নাকচ করে জেলে প্রেরণের আদেশ দেন।  গত ৩রা অক্টোবর শনিবার রাতে রাজধানীর মালিবাগ এলাকা থেকে নিত্যকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ দিন রিমান্ডের আবেদন করেন।
গত ৬ই সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে রাজধানীর কালশী থেকে শাহাদাতের গৃহকর্মী মাহফুজা আক্তার হ্যাপিকে (১১) উদ্ধার করে পুলিশ। ঐদিন বিকালে শাহাদাত মিরপুর থানায় তার বাসার গৃহকর্মী হারিয়েছে বলে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। হ্যাপি পুলিশের কাছে দেয়া তার জবানবন্দিতে শাহাদাত ও তার স্ত্রীর নির্যাতনের কথা বলে। ঐদিন রাতেই মিরপুর মডেল থানায় সাংবাদিক খন্দকার মোজাম্মেল হক বাদি হয়ে শাহাদাত দম্পতির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

 

[the_ad id=”249″]

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 14 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ