হাসপাতালে মিলেনি শয্যা, গাড়িতেই মারা গেলেন নারী

প্রকাশিত: 10:28 PM, August 14, 2021

সিলেট সংবাদদাতা:
গত কয়েকদিন ধরে করোনার উপসর্গ নিয়ে সর্দি-জ্বরে ভুগছিলেন সিলেটের ওসমানীনগরের পিয়ারা বেগম। শুক্রবার (১৩ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮টার দিকে হঠাৎ করে তার শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাকে দ্রুত সিলেট শহরে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু এক এক করে ৩টি হাসপাতাল ঘুরেও আইসিইউ শয্যা খালি না থাকায় তাকে ভর্তি করা যায়নি। পরে অক্সিজেনের অভাবে গাড়িতেই মৃত্যু হয় ৪৫ বছর বয়সী পিয়ারা বেগমের।
শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সিলেট নগরে এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। পিয়ারা বেগম ওসমানীনগর উপজেলার উসমানপুর ইউনিয়নের আব্দুল্লাহপুর গ্রামের মুহিত মিয়ার স্ত্রী ও সিলেটের জমিন পত্রিকার ওসমানীনগর প্রতিনিধি রায়হান আহমদের মা।
পিয়ারা বেগমের নিকটাত্মীয় এম মুজিবুর রহমান বলেন, গত কয়েকদিন ধরে পিয়ারা বেগম সর্দি-জ্বরে ভুগছিলেন। ধীরে ধীরে তার শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। শুক্রবার রাতে তার শ্বাসকষ্ট শুরু হলে প্রথমে তাকে সিলেটের নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে শয্যা না পেয়ে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় পার্কভিউ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানেও আইসিইউ শয্যা খালি পাওয়া যায়নি। পরে রোগীকে নিয়ে যাওয়া হয় আল হারামাইন হাসপাতালে। কিন্তু সেই হাসপাতালেও মিলেনি শয্যা। সেখানে থেকে অন্য আরেকটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে রাত সাড়ে ১০টার দিকে গাড়িতেই মৃত্যুবরণ করেন পিয়ারা বেগম।
মুজিবুর রহমান জানান, মৃত্যুর পর রোগীকে ওসমানীনগরে তার গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। শনিবার (১৪ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টায় পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 39 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ