ভাটি বাংলার দরিদ্রদের মধ্যে আওয়ামীলীগ নেতা প্রভাষক সুয়েবুর রহমান সুয়েব’র সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত: 7:43 PM, May 12, 2020

IMG-20200512-WA0003
অণলাইন ডেস্কঃ দেশে চলমান করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে নিম্নআয়ের কর্মজীবী মানুষ বেকার জীবন যাপন করছেন। সুনামগঞ্জ জেলার ভাটি বাংলার অসহায় দরিদ্র মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন সিলেট মদন মোহন কলেজের প্রভাষক ও ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ সুয়েবুর রহমান সুয়েব।
তিনি বিগত ১১ মে সোমবার বাদশাগঞ্জ বাজার, আহমদপুর বাজার, ধর্মপাশা উপজেলা বাজার, দৌলতপুর, মুক্তারপুর, ইসলামপুর, পতাবপুর, সুরমাঘাট, মান্নানঘাট, চানপুর, জামালগঞ্জ উপজেলা বাজার, সাচনাবাজার, সুনামগঞ্জের ট্রাফিক পয়েন্ট, পুরাতন বাস্ট্যান্ড সহ বিভিন্ন গ্রামে, বাজারে ও শহরে অসহায় দরিদ্র মানুষদের মধ্যে সর্দি+জ্বর ও সিজনাল জ্বরের ঔষধ, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও জীবাণু নাশক হেয়ার ক্যাপ ইত্যাদি বিতরণ করেন।
পৃথক পৃথক স্থানে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শেরগুল আহমেদ, সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজান, মাসুম হেলাল, কে.জি মানব, ছাত্রলীগ নেতা মোঃ আলাভী আল আদিব সারজিল, আদিত্য চক্রবর্ত্তী, ব্যাংকার জায়েদুর রহমান, জামালগঞ্জ উপজেলা আওমীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী আশরাফুজ্জামান, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আবদুল জলিল মিলন, চেয়ারম্যান রজব আলী, আওয়ামীলীগ নেতা ইকবাল আল আজাদ, জাতীয় শ্রমিকলীগের সহ সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মনসুর আল ওসমানী বাদল, ধর্মপাশা উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আবদুল বারেক চোটন, আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, সাইফুল, ব্যবসায়ী আলিনুর, শিক্ষক আতাউর, সেলবরষ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সমপাদক বেনুয়ার হোসেন খান পাঠান, যুবলীগ সভাপতি দুলা মিয়া, পাইকরহাটি ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা জামিরুল মিয়া, সোমেন আহমেদ, ডাঃ জামাল হোসেন, ডাক্তার আমিরুল এবং সুয়েবুরের ছোট ভাই সোহেল আহমেদ প্রমুখ।

আওয়ামীলীগ নেতা প্রভাষক সুয়েব সোমবার সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন ডাক্তার শামসুদ্দিন আহমেদের সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং জেলায় কর্তব্যরত ডাক্তার, নার্স, কর্মকর্তা ও রোগীর খোঁজ খবর নেন। তিনি ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আন্তরিক সেবা প্রদান করায় ধন্যবাদ জানান।
তিনি সিভিল সার্জনকে ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও তাহিরপুর উপজেলার পাটাবুকা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের জন্য ডাক্তার ও প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগের জন্য অনুরোধ করেন। সিভিল সার্জন প্রভাষক সুয়েবুর রহমানকে আস্বস্থ করে বলেন করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর দ্রুত ডাক্তার নিয়োগ দেওয়া হবে। তিনি সিভিল সার্জনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং সিভিল সার্জন অফিসে ব্যবহারের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান করেন। প্রভাষক সুয়েব সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ সহ প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সাংবাদিক যারা করোনার মহামারীর সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন তাদেরকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
এর আগে প্রভাষক সুয়েব ভাটি বাংলার ৪/৫ লক্ষ মানুষর একমাত্র স্বাস্থ্য সেবাকেন্দ্র ১৯৬৫ সালে স্থাপিত সেলবরস উপ স্বাস্থ্য কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। দূর্গম এলাকার মানুষের একমাত্র স্বাস্থ্য সেবাকেন্দ্রে দীর্ঘ ১৫ বছর যাবৎ ডাক্তার নেই। এ হাসপাতালে ডাক্তারদের জন্য আবাসিক সুবিধা রয়েছে। আগে ডাক্তারগণ আবাসিক সুবিধা গ্রহন করে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছেন।
অপর দিকে তাহিরপুর উপজেলার টাংগুয়ার হাওরপারের পাটাবুকা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি ১৯৮৫ সালে স্থাপিত হয়। প্রায় ২০ বছর ধরে এ হাসপাতালে ডাক্তারের কোন দেখা মিলেনি। হাওর এলাকার একমাত্র সেবা কেন্দ্র এই হাসপাতালটিতে আবাসন ব্যবস্থাসহ সব ধরনের সুবিধা রয়েছে। হাসপাতালটিতে ডাক্তার না থাকায় দুর্গম এলাকা ৩/৪ লক্ষ মানুষ স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। উভয় হাসপাতালের এলাকার মানুষ করোনা ভাইরাসের কারণে ভীত ও আতংকিত হয়ে দিন যাপন করছেন। হাসপাতাল দুটিতে ডাক্তার নিয়োগ দেয়া খুবই জরুরী। ডাক্তার না থাকায় ফার্মেসীর উপর নির্ভরশীল অত্র এলাকার মানুষ। তারা সঠিক সেবা পাচ্ছেনা। আওয়ামীলীগ নেতা সুয়েব প্রধানমন্ত্রীর কাছে হাসপাতালে ডাক্তার নিয়োগ দেয়ার অনুরোধ জানান।
প্রভাষক সুয়েব হাসপাতালটি দুটি পরিদর্শন কালে উপস্থিত ছিলেন তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক নজরুল ইসলাম মাসুক, শ্রীপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন, ওয়ার্ড সভাপতি আয়নাল হক, ওয়ার্ড আওয়মীলীগ নেতা বাদল মিয়া। সেলবরষ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি দুলা মিয়া ও পল্লীচিকিৎসক ডাঃ জামাল হোসেন।
প্রভাষক সুয়েব হাওরবাসীদেরকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ূ কামনা করে দোয়া করার অনুরোধ জানান। প্রধানমন্ত্রী হাওরবাসীদের ভালবাসেন। তিনি সুস্থ থাকলে আমরা সুস্থ ও সচল থাকবো। বাংলাদেশ হবে উন্নত সোনার বাংলাদেশ, করোনামুক্ত বাংলাদেশ। তিনি হাওর অঞ্চলে নতুন, নতুন হাসপাতাল তৈরি ও কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো সচল রাখার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানান।
আওয়ামীলীগ নেতা প্রভাষক সুয়েবুর রহমান সুয়েব ব্যক্তিগত উদ্যোগে তাঁর মাসিক বেতন এবং পরিবার থেকে জনকল্যাণে খাদ্য সহায়তা, ঔষধ, স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও অন্যান্য ব্যয় বহন করে দরিদ্র মানুষদের সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মেনে পবিত্র আল কোরআন নাজিলের মাস রমজান মাসে ঘরে বসে বেশি বেশি ইবাদত বন্দেগি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য জনগণকে আহবান জানান এবং সমাজের বিত্তবানদের এ মহামারিতে অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর জন্য উদাত্ত আহবান জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 123 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ