সুনামগঞ্জ অফিসার্স ক্লাব হতে সরকারি কর্মকর্তা সহ ৪ জুয়ারিকে ভ্রাম্যমান আদালতের দন্ডপ্রদান।

প্রকাশিত: 9:09 AM, December 6, 2019



20191206_090525অনলাইন ডেস্কঃ সুনামগঞ্জ অফিসার্স ক্লাব হতে সরকারি কর্মকর্তা সহ ৪ জুয়ারিকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দন্ড প্রদান করা হয়েছে।
বুধবার দিনগত মধ্যরাতে অফিসার ক্লাব হতে আটক করে এই দন্ড প্রদান করা হয়। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের চীফ ইন্সট্রাক্টর মোঃ নুরুল ইসলাম তালুকদার, তিনি ঝালকাটি জেলার, নলসিটি উপজেলার, নলিসিটি গ্রামের মোহাম্মদ হেসন তালুকদারের ছেলে। সুনামগঞ্জ বিসিকের এক্সটেনশন কর্মকর্তা আব্দুল কাশেম। তিনি সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার জগদল গ্রামের আবু তাহের এর ছেলে।

ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা নিখিল চন্দ্র পুরকায়স্থ সুনামগঞ্জ জেলা শহরের নতুনপাড়া আবাসিক এলাকার নিলয়-১৬৫ নিবাসী নলিনী কান্ত পুরকায়স্থর ছেলে। সাব রেজিস্ট্রি অফিসে ডিড রাইটার শ্যামল দাস সুনামগঞ্জ জেলার সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার পৈন্দা গ্রামের সরেন্দ্র দাসের ছেলে। তাদের কে ৫ ডিসেম্বর গভীর রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আটক করে কারাদন্ড প্রদান করা হয়।

জানা যায়, বেআইনিভাবে সুনামগঞ্জ অফিসার্স ক্লাবে মধ্যরাতে অবস্থান করে প্রকাশ্যে জুয়া খেলার অপরাধে এই ৪ জুয়ারিকে ৩০(ত্রিশ) দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

০৫ ডিসেম্বর রাত আনুমানিক ০১.৩০ টায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার মোঃ সম্রাট হোসেন। এ সময়ে
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার এস.এম. রেজাউল করিম, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার, জহিরুল আলম, সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার এস.আই মুহিত মিয়া এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

আটকের সময় জুয়ার বোর্ড হতে চার হাজার একশত টাকা সহ নগদ ত্রিশ হাজার বাহাত্তর টাকা, জুয়ার কার্ড, বিভিন্ন ব্যান্ডের সিগারেট, শরীর উত্তেজক পানিয়ের বোতল, ম্যাচ এবং অন্যান্য সামগ্রী উদ্ধার করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 91 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ