ভারতের সর্ববৃহৎ অস্ত্রাগারে আগুন: কর্মকর্তাসহ ২০ সেনা নিহত

প্রকাশিত: 2:59 AM, June 1, 2016

file (9)অনলাইন ডেস্ক:মহারাষ্ট্রের নাগপুরে পুলগাঁওতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সর্ববৃহৎ অস্ত্রাগারে ভয়াবহ আগুনে ২ কর্মকর্তাসহ ২০ সেনা নিহত হওয়ার ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। মর্মান্তিক এ ঘটনায় অন্য ১৯ জন আহত হয়েছে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আশেপাশের চারটি গ্রামকে খালি করা হয়েছে।

আগুনে আহত চারজন সেনা কর্মকর্তার মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। গুরুতর আহত এক ডেপুটি কমান্ডান্টকে নিকটবর্তী হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পার্রিকার সেনাবাহিনীর কাছ থেকে এ ঘটনার রিপোর্ট তলব করেছেন।

গণমাধ্যমে প্রকাশ, গতরাত দু’ইটার দিকে অগি্নকাণ্ডের ঘটনা ঘটে এবং পরে তা দ্রুত সমস্ত এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ আগুন লাগার বিষয়টি দুর্ঘটনা বলে মনে করছে। এখনো সেখানে থেমে থেমে বিস্ফোরণের শব্দ আসছে। প্রায় এক হাজার গ্রামবাসীকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল শেরু থাপলিয়াল বলেন, মনে হচ্ছে এটা বেশ বড় আগুন। বর্তমানে আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও সেখান থেকে বিস্ফোরণের আওয়াজ আসছে। আশেপাশের গ্রাম বিপদের মধ্যে রয়েছে। যদি বিস্ফোরণ চলতে থাকে তাহলে পরিস্থিতি খারাপ হতে পারে।

পুলগাঁও কেন্দ্রীয় অস্ত্রাগারটি প্রায় ১০ হাজার একর জায়গা জুড়ে অবস্থিত। কারখানা থেকে তৈরি হওয়া যেকোনো ধরণের অস্ত্র এবং গোলাবারুদ প্রথমে এখানে আসে। তারপর অন্য অস্ত্রাগারে তা সরবরাহ করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক বার্তায় বলেছেন, মহারাষ্ট্রের পুলগাঁওতে কেন্দ্রীয় অস্ত্রাগারে আগুন লাগার ঘটনায় আমি ব্যথিত। তিনি আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে শোকসন্তপ্ত সেনা পরিবারের উদ্দেশ্যে গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

ভয়াবহ ওই আগুন লাগার কারণ এখনো স্পষ্ট নয়। ঘটনার তদন্তে বিশেষ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 17 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ