যশোরে দুই শিবির নেতার লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: 12:58 PM, April 13, 2016

যশোরে দুই শিবির নেতার লাশ উদ্ধার

যশোর কোতয়ালী পুলিশ যশোর সদর উপজেলার হৈবতপুর ইউনিয়নের বহরামপুর সার্বজনীন শ্মশান ঘাট থেকে নিখোঁজ দুই শিবির নেতার লাশ উদ্ধার করেছে। নিহতরা হচ্ছেন কালীগঞ্জ পৌরসভাধীন বাকুলিয়া গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে শামীম মাহমুদ এবং চাপালী গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে আবু জার গিফারী। নিহত দুই জনই কলেজ ছাত্র। নিহত শামীম ঝিনাইদহ সরকারি কেসি কলেজের অনার্স ব্যবস্থাপনা দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। আর আবুজার গিফারী যশোর এমএম কলেজের বাংলায় অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্র।
নিহতের স্বজনদের দাবি গত ১৮ই মার্র্চ বিকেলে ও ২৫ শে মার্চ সন্ধ্যার দিকে সাদা পোষাকের ডিবি পুলিশ পরিচয়ে দুই কলেজ ছাত্র আবুজার গিফারি ও শামীম মাহমুদকে তুলে নিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকে তারা নিখোঁজ ছিলেন। তাদের খোঁজে উভয় পরিবারের সদস্যরা থানায় জিডি ও সংবাদ সম্মেলন করে। আজ বুধবার সকালে স্থানীয় সনাতন ধর্মাবলম্বীরা বহরামপুর সার্বজনীন মন্দিরে পূজা করতে গিয়ে মন্দিরের পাশের  পুকুরে দুটি লাশ ভাসতে দেখে। পরে তারা  পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে আজ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কোতয়ালী পুলিশ লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। খবর পেয়ে নিহতদের স্বজনরা হাসপাতালের মর্গে দুই কলেজ ছাত্রের লাশ শনাক্ত করে। স্বজনদের দাবি পুলিশ দুই কলেজ ছাত্রকে গুলি করে হত্যা করে লাশ ঘটনাস্থলে ফেলে গেছে। ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, আমি শুনেছি দু’জনের লাশ পাওয়া গেছে। তবে ঘটনাস্থল যশোরের মধ্যে হওয়ায় বিস্তারিত জানতে পারিনি। যশোর কোতয়ালী থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদের লাশ দুটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 16 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ