মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার রিভিউ আবেদন খারিজ

প্রকাশিত: 1:37 AM, April 11, 2016

মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার রিভিউ আবেদন খারিজ

ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনামন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার রিভিউ আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় হাইকোর্টের দেয়া খালাস বাতিল ?করে আপিল বিভাগের দেয়া পুনঃশুনানির আদেশ রিভিউয়ের আবেদন করেছিলেন তিনি। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এসকে সিনহা) নেতৃত্বে গঠিত আপিল বিভাগের চার সদস্যের একটি বেঞ্চ গতকাল রিভিউ আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দেন। রিভিউ আবেদন খারিজ হওয়ার ফলে হাইকোর্টে এই মামলার পুনঃশুনানির আদেশ বহাল রয়েছে বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। আদালতে মায়ার পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার। এদিকে গতকাল আপিল বিভাগের এ আদেশের প্রতিক্রিয়ায় মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তিনি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করে এ বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানান তিনি।
জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন এবং এ সংক্রান্ত তথ্য গোপনের দায়ে ২০০৭ সালের ১৩ই জুন মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার বিরুদ্ধে রাজধানীর সূত্রাপুর থানায় মামলা দায়ের করে দুদক। একই বছরের ২৫শে অক্টোবর মায়া ও তার স্ত্রী পারভীন চৌধুরী, দুই ছেলে সাজেদুল হোসেন চৌধুরী, রাশেদুল হোসেন চৌধুরী, সাজেদুলের স্ত্রী সুবর্ণা চৌধুরীকে আসামি করে সংশ্লিষ্ট আদালতে চার্জশিট দাখিল করে দুদক। মামলার বিচারিক কার্যক্রম শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ২০০৮ সালের ১৪ই  ফেব্রুয়ারি মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড ও ৫ কোটি টাকা জরিমানা করেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫। তবে, মামলায় অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস দেন আদালত। সাজার বিরুদ্ধে ২০০৯ সালে হাইকোর্টে আপিল করেন মায়া। শুনানি শেষে ২০১০ সালের ২৭শে অক্টোবর হাইকোর্ট তাকে খালাস দেন। পরে হাইকোর্টের এ রায়ের বিরুদ্ধে দুদক আপিল করে। গত বছরের ১৪ই জুন আপিল বিভাগ মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াকে খালাস দিয়ে হাইকোর্টের রায় বাতিল করে এই মামলায় পুনঃশুনানির আদেশ দেন। আপিল বিভাগের এই আদেশ রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) চেয়ে আবেদন করেন মায়া।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 26 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ