মার্কিন জরিপে তথ্য : ৭৩ শতাংশ বাংলাদেশি মনে করে দেশ সঠিক পথেই এগুচ্ছে

প্রকাশিত: 2:50 PM, April 1, 2016

মার্কিন জরিপে তথ্য : ৭৩ শতাংশ বাংলাদেশি মনে করে দেশ সঠিক পথেই এগুচ্ছে

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের ৭৩ শতাংশ নাগরিক মনে করেন দেশ সঠিক পথেই এগুচ্ছে এমন এক জরিপ প্রকাশ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইন্সটিটিউট।

ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইন্সটিটিউটের (আইআরআই) সেন্টার ফর ইনসাইটইস ইন সার্ভে রিসার্চের এক জরিপে একথা বলা হয়েছে।

আইআরআইয়ের এই জরিপ বুধবার প্রকাশিত হলেও তা সংস্থাটির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয় বৃহস্পতিবার।

জরিপে বলা হয়, দেশ সঠিক পথেই এগুচ্ছে এমন ধারণা পোষণকারী বাংলাদেশির সংখ্যা গত বছরের নভেম্বরের তুলনায় ৯ শতাংশ বেড়েছে।

সার্বিকভাবে জরিপে অংশগ্রহণকারী ৮৩ শতাংশ বাংলাদেশি জানিয়েছেন, বাংলাদেশে নিরাপত্তা পরিস্থিতি খুবই ভালো অথবা ভালো। এছাড়া ৭৭ শতাংশ মনে করেন, দেশ রাজনৈতিকভাবে স্থিতিশীল রয়েছে।

জরিপের ফলে উঠে এসেছে, বাংলাদেশের ৭৩ শতাংশ মানুষ মনে করেন দেশ সঠিক দিকেই যাচ্ছেন। জরিপ থেকে দেখা গেছে, ২০১৫ সালের নভেম্বরের জরিপ থেকে এই সংখ্যা নয় শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত দুই বছরে এ ধারণা পোষণকারীদের সংখ্যা ৩৮ পয়েন্ট বৃদ্ধি পেয়েছে।

সামগ্রিকভাবে, জরিপে অংশ নেওয়া উত্তরদাতাদের ৮৩ শতাংশই মনে করেন, বাংলাদেশে নিরাপত্তা পরিস্থিতি খুব ভালো বা কিছুটা ভালো। ৭৭ শতাংশ বলেছেন, তারা মনে করেন দেশের রাজনৈতিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে।

জরিপে অংশ নেওয়া বেশির ভাগ উত্তরদাতা দেশের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে আশাবাদী। ৭২ শতাংশ বিশ্বাস করেন, তাদের ব্যক্তিগত অর্থনৈতিক অবস্থা বা পরিস্থিতি আগামী বছরের মধ্যে উন্নত হবে এবং ৬৫ শতাংশের বিশ্বাস, বাংলাদেশ রাজনৈতিকভাবে আরও স্থিতিশীল হয়ে উঠছে।

তবে ২০১৫ সালের নভেম্বরের চেয়ে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে উদ্বেগ বৃদ্ধি পেয়েছে ৮ শতাংশ। আর ২১ শতাংশ মনে করেন, এখন বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে সমস্যাটি মোকাবিলা করছে তা হলো অর্থনীতি।

জরিপে অংশ নেওয়া শতকরা ৯ জন মানুষ মনে করেন বাংলাদেশ এখন দুর্নীতির সমস্যা মোকাবিলা করছে। তবে ২০১৫ সালে নভেম্বরে এ সংখ্যা ছিল ১৮ শতাংশ। অর্থাৎ ওই সময়ে ১৮ জন মনে করতেন বাংলাদেশ দুর্নীতির সমস্যা মোকাবিলা করছে। দুর্নীতির উদাহরণ দিতে গিয়ে জরিপে অংশ নেওয়া ৪৫ শতাংশ বলেন, চাকরির ক্ষেত্রে তাদের ঘুষ দিতে হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 20 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ