বিয়ে করতে এসে বর শ্রীঘরে

প্রকাশিত: 8:27 AM, March 1, 2016

1প্রান্তডেস্ক:পাবনার চাটমোহর উপজেলার বিলচলন ইউনিয়নের দোদারিয়ায় বাল্য বিয়ে করতে এসে ভ্রাম্যমান আদালতে জেল-জরিমানার শিকার হয়েছে বর রুবেল ও কোলধরা (বরের বোন জামাই) শাহীন। গত সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বাল্যবিয়ে বন্ধ করতে এলাকায় হাজির হয় চাটমোহর থানা পুলিশের এসআই বিদ্যুৎ চৌধুরি। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, সোমবার বিলচলন ইউনিয়নের দোদারিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেনীর শিক্ষার্থী ও মজু প্রামানিকের মেয়ে মোছা. জুলি খাতুন (১১) সাথে বিয়ের কথা ছিল একই ইউনিয়নের সেনগ্রাম দড়িপাড়া এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে মো. রুবেল হোসেন (২১) এর। সেই উপলক্ষে রবযাত্রী হাজির হয় মেয়ে জুলির বাড়ি। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. মিজানুর রহমান বাল্য বিয়ের দায়ে বর রুবেল ও কোলধরা ঝবঝবিয়া গ্রামের রাজ সরদারের ছেলে শাহীন (২৮) কে স্বাক্ষ্য প্রমান শেষে ১৯২৯ সালের বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন (সংশোধনী ১৯৮৪) ধারা ৬ অনুযায়ী দোষীদের ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ১ হাজার টাকা জরিমানা করেন। জরিমানার টাকা অনাদায়ে আরো ৭ দিনের কারাদন্ডাদেশ প্রদান করা হয়। দন্ডপ্রাপ্তদের গতকাল মঙ্গলবার পাবনা জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানুর রহমান জানান, আমি তথ্য নিয়ে জেনেছি ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী জুলিকে বাল্যবিয়েতে সাহায্যে একজন আইনজীবি বয়স বৃদ্ধি করে হলফনামা সম্পাদন করেছেন। ওই আইনজীবির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 6 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ