থাকছে ’না‘ বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম

প্রকাশিত: 1:53 AM, March 4, 2016

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম হিসেবে ইসলামকে বাদ দেয়া হতে পারে। ভিন্ন মতের মানুষের ওপর চরমপন্থীদের হামলার কারণে বিষয়টি সামনে আসে।

ইতোমধ্যেই ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম হিসেবে বহাল রাখার বিষয়টিকে চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা একটি আবেদনের ওপর শুনানী শুরু করেছে সুপ্রিকোর্ট। দেশের অন্যধর্মের মানুষের ওপর হামলার পর বিষয়টি সামনে আসে। অন্য ধর্মাবলম্বীদের মধ্য রয়েছে হিন্দু, খ্রিস্টান ও শিয়া সম্প্রদায়ের লোকজন।

১৯৭১ সালে, বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠা লগ্নে দেশটিকে একটি সেক্যুলার বা ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিলো। কিন্তু ১৯৮৮ সালে সংবিধান সংশোধন করে ইসলামকে রাষ্ট্র ধর্ম হিসেবে ঘোষণা করা হয়। সম্প্রতি বিষয়টি উচ্চ আদালতে চ্যালেঞ্জ হয় এবং দেশটির সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সদস্যরা এ উদ্যোগকে সমর্থন করে।

daily-mail-1

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্র বলছে, আইএসআইএস বাংলাদেশে সদস্য সংগ্রহ শুরু করেছে। তবে দেশটির সরকার বলছে, জঙ্গিবাদ একটি দেশীয় সমস্যা। তবে ব্রেইটবার্ট নিউজ নেট্ওয়ার্ককে একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, আইএসআইস দায় স্বীকার করেছে এমন সহ হামলার সঙ্গে যুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আটকরা আদালতে তাদের দোষ স্বীকার করেছে।

তারা নিজেদের জামাতুল মুজাহেদিন বাংলাদেশের সদস্য বল্ওে স্বীকার করেছে। জানিয়েছে, আইএসআইএস-এর সঙ্গে তাদের কোন সম্পর্ক নেই।

বাংলাদেশের ৯০ ভাগ মানুষ মুসলমান। হিন্দুদের সংখ্যা ৮ ভাগ। এছাড়া বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান সহ অন্যান্য ধর্মের অনুসারী হচ্ছে ২ ভাগ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 13 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ