আইসিটিখাত এগিয়ে গেলে অর্থনীতি হবে অপ্রতিরোধ্য: পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রকাশিত: 1:47 AM, March 4, 2016

আইসিটিখাত এগিয়ে গেলে অর্থনীতি হবে অপ্রতিরোধ্য: পরিকল্পনামন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক : পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) খাতকে এগিয়ে নিতে পারলে বাংলাদেশের অর্থনীতি হবে অপ্রতিরোধ্য। এখাতে আমাদের তরুণ প্রজন্ম অভাবনীয় প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে চলেছে।

পরিকল্পনামন্ত্রী দেশের সর্ববৃহৎ কম্পিউটার মেলা ‘বাংলাদেশ আইসিটি এক্সপো-২০১৬’ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন।

রাজধানীর শেরেবাংলানগরস্থ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির যৌথ উদ্যোগে আজ এ মেলা শুরু হয়েছে।

আগামী ৫ মার্চ পর্যন্ত এ মেলা চলবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, তরুণ প্রতিভাবান জনগোষ্ঠীর সম্ভাবনাময় উদ্ভাবনী প্রতিভা কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশ বহুদূর এগিয়ে যাবে। কেননা, এগিয়ে নেয়ার জন্য যে নেতৃত্বের প্রয়োজন বাংলাদেশের তা রয়েছে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে আইসিটি হচ্ছে অন্যতম প্রধান নিয়ামক। দেশের আইসিটি খাতের বিকাশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সম্ভাব্য সবকিছু করতে বদ্ধপরিকর।
আইসিটি খাতের উন্নয়নে সরকার ১০টি প্রকল্পে প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদান করেছে জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বিশ্ব অর্থনীতির পরিধি প্রায় ৬ ট্রিলিয়ন ডলার। এরমধ্যে আইসিটির অর্জন প্রায় ৪ ট্রিলিয়ন ডলার।

 

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, মাত্র এক দশক আগেও মোবাইল ফোন ছিল সাধারণের নাগালের বাইরে। অথচ বর্তমান সরকারের সময়োপযোগী কর্মসূচির ফলে আইসিটি খাতে বাংলাদেশ চমকপ্রদ সফলতা অর্জন করেছে। দেশের ৯৯ ভাগ এলাকা টেলিনেটওয়ার্কের আওতায় এসেছে। টেলিডেনসিটি শতকরা ৯১ ভাগে উন্নীত হয়েছে। দেশের সাড়ে পাঁচ কোটিরও বেশী মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে।

তিনি টেলি একসেসরিজের আমদানী নির্ভরতা কমিয়ে উৎপাদনে এগিয়ে আসতে দেশী-বিদেশী বিনিয়োগকারীদের প্রতি আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইমরান আহমেদ, আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যামসুন্দর সিকদার, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি এএইচএম আরিফ, ডেল এবং মাইক্রোসফট কোম্পানির এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রতিনিধিদ্বয় বক্তৃতা করেন।

মেলায় দেশি-বিদেশি শতাধিক স্টল ও প্যাভিলিয়ন স্থাপন করা হয়েছে। মন্ত্রী উদ্বোধন শেষে মেলার বিভিন্ন স্টল ও প্যাভিলিয়ন পরিদর্শন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 15 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ