বন্দুকযুদ্ধে’ হত্যা মামলার আসামি নিহত

প্রকাশিত: 5:29 AM, February 23, 2016

109524_untitled_111282প্রান্তডেস্ক:ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার হলদীপাড়া গ্রামের মাঠে ফসল ক্ষেতে পুলিশ ও সন্ত্রাসীদের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্টু ( ২৮ ) নামে হত্যা মামলার আসামি নিহত হয়েছেন। তিনি মহেশপুর উপজেলার লালপুর গ্রামের রওশান আলির ছেলে। আজ মঙ্গলবার ভোর রাতে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে।
ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মো. আলতাফ হোসেন জানান, ১৪ ফেব্রুয়ারি একই উপজেলার গোপালপুর গ্রামের আনু মোল্লার ছেলে আকিমুল ইসলামকে মোটরসাইকেলসহ অপহরণ করে নিয়ে যায় নিহত সন্টু ও তার সহযোগীরা। পরে অনেক খোঁজাখুজির পরও তার সন্ধান মিলে না। ১৮ ফেব্রুয়ারি দুপুরে সাজিয়া গ্রামের একটি গম ক্ষেতে তার লাশ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে মহেশপুর থানায় মামলা হয়। মামলায় নিহত সন্টু এক নম্বর আসামি ছিলেন।
বৃহস্পতিবার পুলিশ কুষ্টিয়া থেকে সন্টুকে গ্রেফতার করে। পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে তিনি মহেশপুরের হলদেপাড়া গ্রামের মাঠে তার লুকানো অস্ত্রের সন্ধান দেন। রাত ৩টার দিকে পুলিশ তাকে সঙ্গে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে বের হয়। রাত সাড়ে ৩টার দিকে হলদেপাড়ার মাঠে পৌঁছলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সন্টুর সঙ্গীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ শুরু করে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। উভয় পক্ষের মধ্যে ৭/৮ মিনিটি ‘বন্দুকযুদ্ধ’ চলে। পালানোর সময় সন্টু গুলি বিদ্ধ হন। তাকে উদ্ধার করে মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন।
ঘটনাস্থল হতে পুলিশ একটি পাইপগান ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে।
‘বন্দুকযুদ্ধ’ কালে কনেস্টবল মাসুদ আহমেদ ও আহসান আলি আহত হন। তাদের ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে পুলিশ সুপার আরো জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 5 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ