এটিএম কার্ড জালিয়াত নিয়ে ইবিএলের রহস্যজনক আচরণ

প্রকাশিত: 11:24 AM, February 18, 2016

এটিএম কার্ড জালিয়াত নিয়ে ইবিএলের রহস্যজনক আচরণ

094846Mir-Kasem-Ali-(3)প্রান্ত ডেস্ক:জালিয়াতের মাধ্যমে ব্যাংকের এটিএম কার্ড ক্লোন করে এটিএম বুথ থেকে ২৪ জন গ্রাহকের টাকা হাতিয়ে নেয়া বিষয়ে রহস্যজনক আচরণ শুরু করেছে ইবিএল কর্তৃপক্ষ। ক্ষতিগ্রস্তদের টাকা ফিরিয়ে দিলেও এখন পর্যন্ত এ চক্রের বিরুদ্ধে মামলা করেনি ব্যাংকটি। অথচ অন্য দুটি ব্যাংক ঘটনার পরপরই মামলা করেছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে মামলা করার নির্দেশনা দিলেও ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত মামলা করেনি।
গত ৬ থেকে ১২ ফেব্রুয়ারি এই সময়ের মধ্যে ইবিএল, সিটি ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি) ও মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ছয় বুথে ‘স্কিমিং ডিভাইস’ বসিয়ে কার্ডের তথ্য চুরি করে ক্লোন কার্ড তৈরি করে গ্রাহকদের অজান্তে টাকা তুলে নেওয়া হয়। তবে তা জানাজানি হয় ১২ ফেব্র“য়ারি।
এসময় ৩৬ জন গ্রাহক তাদের একাউন্ট থেকে টাকা হারান। এর মধ্যে ইবিএল এর গ্রাহক সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি। বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, এর মধ্যে মধ্যে ইস্টার্ন ব্যাংকের ২৪ জন, সিটি ব্যাংকের ৪ জন, ইউসিবির ৭ জন এবং মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ১ জন গ্রাহক তাদের টাকা হারিয়েছে। এসময় ১ হাজার ২০০ জন গ্রাহক এই ৬টি বুথ ব্যবহার করে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা বলেন, আমরা ধারনা করছি এই ১ হাজার ২০০ জন গ্রাহকের এটিএম কার্ডের তথ্য চুরি হয়ে থাকতে পারে। তাই এই সকল কার্ড বন্ধ করে গ্রাহকদের নতুন কার্ড দেয়ার জন্য ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
এটিএম কার্ড কেলেঙ্কারির বিষয়ে ইউসিবি গত ১২ ফেব্রুয়ারিতেই বনানী থানায় ও সিটি ব্যাংক ১৫ ফেব্রুয়ারিতেই পল্লবী থানায় আলাদা দুটি মামলা করে। ইউসিবির মামলাটির তদন্ত করছে ডিবি।
তবে ঘটনার ছয় দিন পার হলেও এ বিষয়ে মামলা করেনি ইস্টার্ন ব্যাংক।
এ বিষয়ে ইবিএল এর জনসংযোগ কর্মকর্তা জিয়াউল করিম শীর্ষ নিউজকে বলেন, ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা পুনারায় না ঘটে সেজন্য প্রযুক্তি আরও উন্নত করবে ইবিএল। এত দিন পার হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত মামলা করা হয়নি ইবিএল এর পক্ষ থেকে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আমরা আগামীতে মামলা করতে পারি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 19 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ