নিউ ইয়র্কে ফের হামলার শিকার এক বাংলাদেশি

প্রকাশিত: 6:36 AM, February 9, 2016

নিউ ইয়র্কে ফের হামলার শিকার এক বাংলাদেশি

109524_untitled_111282প্রান্তডেস্ক:নিউ ইয়র্কে আবারও বর্ণবৈষম্যের শিকার হয়েছেন এক বাংলাদেশি। গত শনিবার রাতে বাংলাদেশি অধ্যুষিত নিউ ইয়র্কের ব্রঙ্কস এলাকায় দুর্বৃত্তের হামলায় আহত হয়েছেন আতাউর রহমান নামে এক বাংলাদেশি ট্যাক্সিচালক। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে সন্দেহভাজন একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আহত আতাউর রহমানের বড় ছেলে মাহমুদুর রহমান লিমন সাংবাদিকদের জানান, প্রতিদিনের মতো পার্কচেস্টারের কাছে ভার্জিনিয়া এভিনিউর বাসা থেকে বের হয়ে যান আতাউর। রাত সোয়া ১১টার দিকে তাঁর ট্যাক্সিতে ক্যাসেলহিল থেকে শিশুসহ এক হিসপ্যানিক যাত্রী তুলে সেন্ট লরেন্সের ১৭২ স্ট্রিটে নামিয়ে দেন তাকে। এ সময় ওই যাত্রী ভাড়া না দিয়ে চলে যেতে চাইলে আতাউরের সঙ্গে তার কথাকাটাকাটি হয়। পুলিশ কল করার কথা বললে ২০ ডলারের একটি নোট বের করে দেন ওই যাত্রী। এরপর ১০ ডলার ভাড়া রেখে বাকি টাকা যাত্রীকে ফেরত দেন আতাউর। এ ঘটনার পরপরই ওই যাত্রী তার সঙ্গে থাকা শিশুটিকে পাশের দোকানে রেখে এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবককে সঙ্গে নিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই আতাউরের ওপর অতর্কিতে হামলা চালান। ওই কৃষ্ণাঙ্গ যুবক মদের বোতল দিয়ে মুখে আঘাত করলে আতাউর মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এ সময় হামলাকারীরা তাকে বেদম পেটাতে থাকে। এতে তার ১২টি দাঁত ভেঙে যায়। দীর্ঘ সময় ধরে চলা ওই হামলার পর রক্তাক্ত আতাউর ‘হেল্প হেল্প’ বলে চিৎকার করতে থাকলে দুই তরুণী পুলিশে খবর দেয়। কিছু সময় পর অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সংজ্ঞাহীন আতাউরকে জ্যাকবি হাসপাতালে নিয়ে যায়। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এক অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে আতাউরের পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানা গেছে। তারা ভীতসন্ত্রস্ত দিন কাটাচ্ছেন এবং বাড়ির বাইরে যেতেও ভয় পাচ্ছেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন আতাউরের বড় ছেলে লিমন। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে একই এলাকায় বসবাসকারী বাংলাদেশি মুজিবুর রহমান নামে এক বাংলাদেশি বর্ণবৈষম্যের শিকার হন। পরপর দুই ঘটনায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে ওই এলাকায় বসবাসকারী প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 6 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ