পুলিশের ধাওয়ার পর ডোবায় মিলল যুবলীগকর্মীর লাশ

প্রকাশিত: 10:31 AM, February 8, 2016

g
সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার দেবনগর গ্রামের মোতাল্লেব বিক্সের পাশের একটি ডোবা থেকে বিবস্ত্র অবস্থায় তার লাশের সন্ধান পাওয়া গেছে।
রাসেল উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নের মৃত নোয়াব আলীর ছেলে। তিনি ওই ইউনিয়নের যুবলীগের সক্রিয় কর্মী ছিলেন।
গত ৩ ফেব্রুয়ারি রাত ৯টার দিকে রাসেলকে রামগঞ্জ থানার এসআই মো. জহিরুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ দেবনগর ও ভোলকোটে টহল দেওয়ার সময় ধাওয়া করে। তারপর থেকেই তিনি নিখোঁজ ছিলেন। রাসেলের পরিবার গত রবিবার রামগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়রিও করে।
নিখোঁজ রাসেলের বড় বোন লাইলী বেগম, চাচাত ভাই মোবারক হোসেন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাসেল ভোলাকোট ইউনিয়নের সাবেক যুবলীগ সভাপতি ও সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জুয়েলের সঙ্গে চলাফেরা করার কারণে রামগঞ্জ থানার এসআই রেজাউল করিম কিছু দিন থেকে বিভিন্ন মাধ্যমে তাকে ক্রসফায়ারের হুমকি দিয়ে আসছিলেন।
তারা অভিযোগ করেন, গত ফেব্রুয়ারি রাত ৯টায় রামগঞ্জ থানা পুলিশের এস আই মো. জহিরুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ দেবনগর ও ভোলকোটে টহল দেওয়ার সময় রাসেলের গতিরোধ করে। এ সময় রাসেল মোটরসাইকেল রেখে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় পিছন থেকে পুলিশ ধাওয়া করে। এর পরদিন দেবনগর মাঠে রাসেলের জামাকাপড় পাওয়া যায়।
এ ব্যাপারে পুলিশের উপ-পরিদর্শক রেজাউল করিম জানান, রাসেলের ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না এবং চিনি না।
পুলিশের উপ-পরিদর্শক জহিরুল ইসলাম জানান, বুধবার রাত ৯টার দিকে একটি মোটরসাইকেলের (আর ওয়ান ফাইভ) গতিরোধ করলে চালক গাড়ি রেখে পালিয়ে যায়। পরে আমরা মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে থানায় এনে একটি সাধারণ ডায়রি করি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 11 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ