আজ শুরু হচ্ছে একুশে বইমেলা-সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালী

প্রকাশিত: 6:56 AM, February 1, 2016

আজ শুরু হচ্ছে একুশে বইমেলা-সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালী

109524_untitled_111282প্রান্ত ডেস্ক: আজ থেকে শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী অমর একুশে বইমেলা।এ উপলক্ষে সিলেটে সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সোমবার সকাল ১১টায় জেলা পরিষদ প্রাঙ্গন থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করে। বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকায় এই মেলা উদ্বোধন করবেন বলে কথা রয়েছে।
কয়েক বছর ধরে বইমেলার ব্যাপ্তি বাড়ানো হচ্ছে, একাডেমি থেকে মেলাকে সোহরাওয়ার্দি উদ্যানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, এবার গতবারের তুলনায় দ্বিগুণ আয়তন জুড়ে এই মেলা হচ্ছে।
এত ব্যাপ্তির কারণ প্রসঙ্গে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান বলেন “প্রকাশকের সংখ্যা বেড়ে গেছে, প্রত্যেকের প্রত্যাশা যে মেলায় বড় স্টল পাবে”।
“তাছাড়া গত বছর ৩৫২টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছিল । এবার প্রায় ৪৫০ প্রতিষ্ঠান প্রকাশক অংশগ্রহণ করছেন। এ মেলায় দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ আসে।
এমনকি প্রবাসীরাও শুধু আসেন একুশে বইমেলায় অংশ নিতে। সে কারণে মেলার পরিধি বাড়াতে হয়েছে”।
গতবছর প্রায় চার হাজারের মতো বই প্রকাশ হয়েছিল এবারেও এ পরিমাণ বা তার থেকেও বেশি বই বের হবে বলে জানাচ্ছেন মি: খান।
তবে বইয়ের মান নিয়ে প্রশ্ন আছে।
এত সংখ্যক বইয়ের মধ্যে মাত্র একশো থেকে দেড়শো বই মানসম্মত বলে জানাচ্ছেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক।
আর মান যে নিশ্চিত করা যাচ্ছে না এটাকে একটা বড় সমস্যা বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।
“এটা পাঠকদের ওপর ছেড়ে দিয়েছি তারাই মান নির্ণয় করবেন। একটা সমস্যার কথা শোনা যায়, বাইরে যারা থাকেন তারা কোন কোন প্রকাশকদের টাকা দিয়ে থাকেন, তারপর তাদের লেখা একটা বই ছাপিয়ে দেয়া হয়”- বলেন মি: খান।
“অনেক ক্ষেত্রে বিদেশেও নতুন লেখকদের বই টাকা নিয়েই ছাপা হয়। কিন্তু সেখানে মান যাচাইয়ের ব্যবস্থা আছে, প্রকাশকদের সম্পাদনা রিষদ আছে, ভাষা সম্পাদন করা হয় পরিমার্জন করা হয়-এগুলো বাংলাদেশে নেই বলে মান যাচাই করা সম্ভব হচ্ছেনা”।
সম্প্রতি শামসুজ্জামান খান বলেছেন প্রকাশকরা যেন বই প্রকাশের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকে।
যে কোন বই বা সাহিত্য মুক্ত চিন্তার অংশ, সেটাতে সতর্ক থাকার প্রসঙ্গ আসলে কতটা যৌক্তিক এমন প্রশ্নে মি: খান বলেছেন, “একটা অশ্লীল বিষয় খোলামেলা ভাবে বলাটা ভালো দেখায়না, ওই লেখাটা যেন শিল্পিত ভাষায় হয় সেদিকটা যেন নজরে থাকে”।
“পাশাপাশি স্পর্শকাতর বা উস্কানিমূলক কোন লেখা বা গালাগালি যেন না থাকে -সেদিকটার কথা মাথায় রেখে সতর্ক থাকার কথা বলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামস্জ্জুমান খান।
গতবছর মেলা প্রাঙ্গণে একজন ব্লগারকে কুপিয়ে হত্যার প্রেক্ষাপটে এবার মেলাকে ঘিরে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 20 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ