দুই শিশুকন্যা বিক্রির অভিযোগ বাবা পুলিশ হেফাজতে

প্রকাশিত: 7:39 AM, January 28, 2016

দুই শিশুকন্যা বিক্রির অভিযোগ বাবা পুলিশ হেফাজতে

vfপ্রান্তডেস্ক:ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে দুই শিশুকন্যাকে বিক্রির অভিযোগে এক পিতাকে পুলিশে দেওয়া হয়েছে। অভিযুক্ত পিতা মনির হোসেন বিদেশে যাওয়ার টাকা জোগাড় করতে দুই শিশু মারিয়া (৬) ও সামিয়াকে (৪) বিক্রি করে দিয়েছেন বলে আশঙ্কা এলাকাবাসীর। তবে মনিরের দাবি, পরিচিত একজন তাকে নেশাজাতীয় ওষুধ খাইয়ে দুই সন্তান নিয়ে পালিয়ে গেছে। গতকাল বুধবার মনিরকে জিজ্ঞাসাবাদ এবং দুই শিশুকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। অভিযুক্ত মনির উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের কান্দাপাড়া এলাকার মুক্তিযোদ্ধা মো. ইদ্রিস মিয়ার ছেলে।
মনিরের স্ত্রী রত্না বেগমসহ পরিবারের অন্যরা জানান, ১৫ জানুয়ারি দুই মেয়ে মারিয়া ও সামিয়াকে নিয়ে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে মনির হোসেন রাতে আর ফেরেনি। বিভিন্ন আত্মীয়স্বজনের বাড়ি খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে ঘটনার পাঁচ দিন পর নবীনগর উপজেলার বীরগাঁওয়ে মনির হোসেনকে পাওয়া গেলেও মেয়ে দুটির হদিস মেলেনি। স্থানীয়দের আশঙ্কা, বিদেশে যাওয়ার টাকা জোগাড় করতে মনির তার দুই মেয়েকে বিক্রি করে দিয়েছে।
তবে মনির জানায়, উপজেলার লালপুর নাথপাড়া গ্রামের রতন মিয়া তাকে নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে দুই সন্তান নিয়ে পালিয়ে গেছে। তবে এ ঘটনা সে আগে কেন পরিবার কিংবা পুলিশকে জানায়নি এবং সে কেন লুকিয়ে ছিল, সে বিষয়ে কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি। এতে সন্দেহ হওয়ায় মনিরের বাবা ইদ্রিস মিয়া নিজেই বিষয়টি স্থানীয় শরীফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. সাফি উদ্দিন চৌধুরী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা হাজি মো. ছফিউল্লাহ মিয়াকে জানান। তারা মনিরকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করেও কোনো সদুত্তর না পেয়ে গতকাল দুপুরে তাকে পুলিশে দেন। এদিকে, মনিরের অভিযুক্ত রতনকেও গতকাল খুুঁজে পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ থানার ওসি মোহা. সেলিম উদ্দিন জানান, অভিযুক্ত মনির পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরামর্শ করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 9 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ