জেলখানার বাথরুমে সোনার ডিম পাড়ল আসামী

প্রকাশিত: 9:36 AM, January 19, 2016

জেলখানার বাথরুমে সোনার ডিম পাড়ল আসামী

109524_untitled_111282প্রান্ত ডেস্ক:হাজতখানার বাথরুমে সোনার তিনটি ডিম পেড়েছেন এক আসামি। ওই আসামির নাম আরিফ উল্লাহ মুন্সি (৩৬)। বিমানবন্ধর থানার ১৮(১)১৬ নম্বর মামলার আসামি তিনি।
সোমবার ঢাকা সিএমএম আদালতের হাজতখানার বাথরুমে এ ঘটনা ঘটে। ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ইউনুস খানের আদালত শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ।
পুলিশ সুত্রে জানা যায়, আদালতে নেয়ার পর আসামি বাথরুমে যেতে চাইলে পুলিশ কন্সটেবল শওকত তাকে বাথরুমে নিয়ে যান। বাথরুম থেকে বের হওয়ার পর আসামি আরিফ উল্লাহকে কিছু লুকাতে দেখতে পান কন্সটেবল শওকত। এতে সন্দেহ হলে তিনি আসামি আরিফের কাছে তিনটি সোনার বার দেখতে পান।
এরপর কন্সটেবল শওকত বিষয়টি হাজতখানার ওসি মুরাদ হোসেনকে জানালে তার জিজ্ঞাসাবাদে আসামি আরিফ জানান যে, পশ্চাদ্দেশ দিয়ে ঢুকিয়ে পেটের মধ্যে করে তিনটি বার নিয়ে এসেছিলেন তিনি। বাথরুমে গেলে ওই তিনটি বার পায়খানার সঙ্গে বের হয়ে আসে।
আরিফ আরো জানান, তার উদ্দেশ্য ছিল রিমান্ড শুনানিতে তাকে আদালতে তোলা হলে ওই তিনটি বার তার আত্মীয়-স্বজনদের কাছে দিয়ে দেবেন।
পরে মুরাদ হোসেন বিষয়টি ঢাকার সিএমএম এবং ডিসি প্রসিকিউশনকে জানালে তারা সোনার বারগুলো জব্দ করে কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করার নির্দেশ দেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ওসি হাজত মুরাদ হোসেন রাজধানীর কোতোয়ালি থানায় এ আসামির বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
উল্লেখ্য, আসামি আরিফ উল্লাহ মুন্সি ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার সদর থানার সুলতানপুর গ্রামের মোহাম্মাদ উল্লাহ মুন্সির ছেলে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 3 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ