বিশেষ প্রতিবেদন প্রধানমন্ত্রী বরাবরে সিলেটবাসীর দাবী ও প্রত্যাশা-খন্দকার মামুন আলী আখতার

প্রকাশিত: 9:13 AM, January 16, 2016

বিশেষ প্রতিবেদন প্রধানমন্ত্রী বরাবরে সিলেটবাসীর দাবী ও প্রত্যাশা-খন্দকার মামুন আলী আখতার

mamunaliaktherহযরত শাহ জালাল ও তার সঙ্গীঁ ৩৬০ আউলিয়া ও শ্রীচৈতন্যের পূণ্য পদস্পর্শে ধন্য-দুটি পাতা একটি কুড়ির ভূমি সিলেটে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপনাকে স্বাগত। মরমী সাধক হাছন রাজা আরকুমশাহ,শীতালংশাহ,রাধারমন,রকিবশাহ,শাহ আব্দুল করিম সহ অসংখ্য বাউল ফকিরের সাধন ও চারণ ভূমি এই সিলেট। বাঙ্গাঁলী জাতির মুক্তি সনদ ৬দফা আন্দেলনের শহীদ শ্রমিক নেতা মনুমিয়ার জন্মভূমি সিলেট। এই সিলেটের সন্তান মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি বঙ্গঁবীর জেনারেল আতাউল গণি ওসমানী সহ অধিনায়ক জেনারেল এম,এ,রব প্রয়াত জাতীয় নেতা আব্দুস সামাদ আজাদ;দেওয়ান ফরিদ গাজি:পীর হাবিবুর রহমান;আসাদ্দর আলী, সাবেক অর্থমন্ত্রী এস এম কিবরিয়া, সাবেক স্পীকার হুমায়ুন রশীদ চৌধুরী, প্রসূন কান্তি রায় বরুন সাহিত্যিক সৈয়দ মুজতবা আলী দার্শনিক অধ্যক্ষ দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফ;শহীদ ড.জি:সি দেব; ড.আব্দুল মুক্তাদির সহ অসংখ্য জ্ঞানী-গুনি। আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে অবরুদ্ধ বাংলাদেশে বসবাসকারীরা যেরকম সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন তেমনি প্রবাসী সিলেটীরাও প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে জনমত গঠন ও আর্থিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে বিশাল ভূমিকা রেখেছেন। বৃটিশ বিরোধী স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে আমাদের মহান মুক্তি সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের প্রতিটি পর্বে সিলেট বাসীর অবদান কোনো অংশে কম নয়। অথচ অজ্ঞাত কারণে সিলেটের জনগণ আজও অবহেলিত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সিলেটের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠে মদন মোহন মহাবিদ্যালয়ের ৭৫বর্ষ পূর্ত্তি অনুষ্ঠানে আপনার সদয় উপস্থিতিতে আমরা আপ্লুত উদ্বেলিত। আমরা আজ এই কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত মোহিনী মোহন দাশ, যোগেন্দ্র মোহন দাশ ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদ এই কলেজে কৃতি শিক্ষার্থী শহীদ সোলেমান,শহীদ চান্দ মিয়া,শহীদ জীবলালের পবিত্র স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আপনার সমীপে এই কলেজটিকে সরকারী করণে দাবী জানাই। আমরা জানি আপনি একজন শিক্ষাবান্ধব ব্যক্তিত্ব। আমরা আপনার সদয় অবগতির জন্য জানাতে চাই এক সময়ে শিক্ষা দীক্ষায় সিলেট অত্যন্ত অগ্রসর থাকলেও আজ গোটা দেশের সাথে তুলনা করলে সিলেট অত্যন্ত পশ্চাদ পদ। তার কারণ হলো শিক্ষার ব্যয়বৃদ্ধি স্কুল,কলেজ,বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে আসন সংকট। তাই আমরা আপনার কাছে সিলেট অঞ্চলের প্রতি উপজেলায় ১টি বালক,১টি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,একটি মহিলা কলেজ ও একাট বয়েজ কলেজ স্থাপনের দাবী করছি। একই সাথে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষায় অনগ্রসর সিলেটী ছাত্র ছাত্রীদের ভর্তিও জন্য প্রতিটি বিভাগে মোট আসনের ৩০ভাগ বরাদ্দ রাখার আবেদন করছি।
সিলেট কারিগরি মহাবিদ্যালয় ও সরকারী বেসরকারী নিয়ে ৫টি চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় রয়েছে। আমরা সিলেটে একটি প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ও একটি চিকিৎসা বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবী জানাচ্ছি। একই সাথে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের রোগী উপচে পড়া চাপ নিয়ন্ত্রণে পর্যাপ্ত পরিমাণ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিয়োগ সহ প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগের এবং হাসপাতালে শয্যা সংখ্যা বৃদ্ধি, শহীদ সামছুদ্দিন হাসপাতালকে স্বয়ং সম্পূর্ণ করা,সিলেট সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ সহ পর্যাপ্ত চিকিৎসক,নার্স ও জনবল নিয়োগ করা,সিলেট যক্ষা হাসপাতালে শয্যা সংখ্যা বৃদ্ধি সহ পর্যাপ্ত চিকিৎসক,নার্স ও জনবল নিয়োগ করা,সিলেট কুষ্ঠ হাসপাতালকে আধুনিকায়ন,বিরনাদিনী পৌর হাসপাতাল সংস্কার ক্রমে সার্বক্ষণিক জনরুরি বিভাগ চালু সহ নূন্য পক্ষে ১০০ শয্যার হাসপাতালে উন্নিত করার দাবী জানাচ্ছি।
মাননীয় প্রধান মন্ত্রী
সিলেটের প্রচুর মানুষ প্রতিদিন রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাতায়াত করেন আর এক্ষেত্রে সড়ক পথই তাদের প্রধান অবলম্বন। সিলেট ঢাকা মহা সড়ক দুই লেন থাকায় প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটে ব্যাপক প্রাণহানি। এমনি এক দুর্ঘটনায় মারা যান সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার হোসেন শামীম। সুনামগঞ্জের জননন্দিত পৌর মেয়র মমিনুল মউজউদ্দিন। সাবেক অর্থমন্ত্রী এস,সাইফুর রহমান। অনেক ক্ষেত্রে দ্রুত চিকিৎসা না পাওয়ায় অনেক আহত রোগী মৃত্যু মুখে পতিত হন। তাই আমরা সবিনয়ে দাবী করছি সিলেট ঢাকা মহাসড়কে অন্তত: তিনটি ক্যজুয়ালটী হাসপাতাল ও ট্রামাসেন্টার স্থাপনের। সেই সাথে আমাদের আকুল আবেদন সিলেট ঢাকা মহাসড়ককে ৬ লেনে উন্নিত করুন।
(২) সিলেটের বিপুল সংখ্যক মানুষ প্রবাসে বসবাস করেন। তারা দেশে আসতে ঢাকা বিমানবন্দরে নানা উঠকো ঝামেলার সম্মুখীন হন, যে কারনে সিলেটবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবী ছিল ওসমানী বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে রূপান্তরের। রূপান্ত আপনার নেতৃত্বাধীন সরকার করলেও রিফুয়েলিং স্টেশন পুরোপুরি চালু না হওয়ায় ওসমানী বিমানবন্দর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর রূপে তার কার্য্যক্রম পরিচালনা করতে পারছেনা। এব্যাপারে আমরা আপনার সদয় দৃষ্টি কামনা করছি।
(৩) মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি জানেন যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের বিশেষ করে সিলেটের ব্যাপক সংখ্যক জনগন বসবাস করেন। যুক্তরাজ্যের ভিসা প্রসেসিং সেন্টার স্বাধীনতা উত্তরকাল হতে ঢাকায় ছিল, কিন্তু হালে যুক্তরাজ্য সরকার ঠুনকো তা অজুহাতে নয়াদিল্লীতে স্থানান্তর করেছেন। যা বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বকে কটাক্ষ করার নামান্তর। যুক্তরাজ্যের ভিসা প্রসেসিং সেন্টার ঢাকায় পুনস্থাপনের দাবীতে সামাজিক সংগঠন সিলেট ডেভলাপমেন্ট কাউন্সিল মানববন্ধন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয় সমীপে স্মারকলিপি প্রদান, সিলেটের ২১ জন সংসদ সদস্য বরাবরে এব্যাপারে কার্য্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবী জানিয়ে আবেদন করেও কোন ফলদোয় হয়নি। তাই আমরা এব্যাপারে আপনার সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
(৪) সিলেট প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলা ভূমি,এখানে পর্যটন শিল্প বিকশিত হবার রয়েছে অপার সম্ভাবনা। সিলেটের রাতারগুল,বিছনাকান্দি,মাধবকুন্ড,হামহাম জলপ্রপাত,সাতছড়ি,লাউয়াছড়া ইত্যাদি স্থান গুলো ব্যাপক ভাবে পর্যটকদের আকৃষ্ঠ করলেও অবকাঠামো গত কারণে এগুলো শিল্প রূপে বিকশিত হতে পারছে না। এগুলোর তথা পর্যটন শিল্পের বিকাশে অবকাঠামোগত উন্নয়নে আপনার সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করি।
(৫) সিলেট প্রাকৃতিক সম্পদের ভরপুর একটি অঞ্চল। এখানখার প্রাকৃতিক গ্যাস ও পেট্রোল দেশের অর্থনীতিতে বড় রকমের অবদান রাখছে। এখানকার গ্যাস পাইপ লাইনে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে অথচ সিলেটবাসী জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিশন ও ডিষ্ট্রিভিউশন সিষ্টেম লি:সাম্প্রতিক মৌখিক নির্দেশ গ্যাস সংযোগ পাচ্ছেন না আমরা এব্যাপারে আপনার নির্দেশনা চাই। একই সাথে আমরা গ্যাস ব্যবহার করে ফ্রাকশেন্যাশন প্লট স্থাপনের দাবী করছি। আমরা মনে করি ফ্রাকশেন্যাশন প্লান্ট স্থাপিত হলে জ্বালানী হিসাবে গ্যাস ব্যবহারের পরিবর্তে জাতিয় উন্নয়নে গ্যাস ব্যবহার নিশ্চিত হবে।
(৬) প্রাকৃতিক সম্পদ সমৃদ্ধ সিলেট প্রাকৃতিক বির্পযয়ের ভয়াল হুমকীর মুখে রয়েছে। ভুতত্ত্ববিদদের মতে সিলেট ভুমিকম্পের মারাত্মক ঝুকির মধ্যে রয়েছে। আল্লাহ না করুন যদি শক্তিশালী ভুমিকম্প সিলেটে বড় ধরনের কোনো দুর্যোগ তৈরী করে তাহলে তা মোকাবেলা করার মত সামর্থ সিলেট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের নেই। এর পেছনের কারণ হলো পেশাদার জনবল ও যন্ত্রপাতির অভাব। আমরা এক্ষেত্রে সিলেট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সকে স্বয়ং সম্পূর্ণ করার দাবী জানাচ্ছি।
(৭) হাওর,বিল,নদী বেষ্টিত সিলেটের নদী গুলো ভরাট হয়ে গেছে যে কারণে শুকনো মৌসুমে নদী শুকিয়ে যায়। আর বর্ষায় দ্রুত প্লাবিত হয়ে সৃষ্টি করে ব্যাপক জনদুর্ভোগ,অর্থনৈতিক ক্ষতি। তাই নদীগুলো দ্রুত খনন করার পদক্ষেপ নিতে আমরা সবিনয় অনুরোধ করছি। একই সাথে টাঙ্গুঁয়ার হাওর,হাকালুকি হাওর,দেখার হাওর,শনির হাওর সহ সকল হাওর ও বিল গুলো যথাযথ সংরক্ষনে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাই।
(৮) অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে আমরা লক্ষ করছি সিলেটের বিভিন্ন সরকারী প্রতিষ্ঠানে স্থানীয় লোকদেও অনুপস্থিতিতি বাড়ছে। কিছু সংখ্যক অসাধু কর্মকর্তা নিজেদের প্রভাব প্রতিপত্তি খাটিয়ে অস্থানীয়দেরকে নিয়োগ করছেন। যে কারণে সিলেটের মানুষের মনে তীব্রক্ষোভের সৃষ্টি করছে। আমরা এ ক্ষোভ যাতে কোনো বড় রকমের সংঘাতের সৃষ্টি না করে সেজন্য কার্যকর ভুমিকা পালনে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় অনুরোধ করে সুফল পাইনি। তাই এই স্পর্শকাতর ব্যাপারে আপনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী
দেশের অন্যতম বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী পণ্য হলো চা। সিলেটেই দেশের অধিকাংশ চা বাগান। চা বোর্ডের সদর দপ্তর ও চা নিলাম কেন্দ্র সিলেটে না থাকায় চ বাগান কর্তৃপক্ষ প্রতিনিয়ত সমস্যার সম্মুখীন হন। আমরা চা শিল্পেপর সমস্যা সমাধানে চা বোর্ডের কার্য্যলয় ও চা নিলাম কেন্দ্র সিলেটে স্থাপনে আপনার সুদৃষ্টি কামনা করছি।
এছাড়াও সিলেটে ইউরেনিয়াম প্রাপ্তির বিষয়টি সাম্প্রতিক সময়ে নিশ্চিত হয়েছে। আমরা ইউরেনিয়াম ব্যবহার করে সিলেটে আধুনিক উন্নয়নমুলক নিউক্লিয়ার প্রকল্প স্থাপনে আপনাকে অনুরোধ করছি।
আমরা সিলেটের আনারস, লেবু, কমলা ইত্যাদিকে ব্যবহার করে সিলেটে জুস প্রসেসিং প্রতিষ্ঠানসহ আগর ও রাবার শিল্পের ব্যাপক বিকাশে আপনার সূচীন্তিত পদক্ষেপ কামনা করছি। একই সাথে যুক্তরাজ্যের সাড়ে ১২ হাজারের অধিক রেস্টুরেন্ট মালিকের সাথে যোগাযোগ করে পাপড়, মসলা ও সাজসজ্জার জিনিষপত্র যোগান দেয়ার কার্য্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করতে অনুরোধ করছি।
হে মহান অতিথি,
আপনাকে কাছে পেয়ে আমরা আবেগ আপ্লুত,আমরা গর্বিত। আপনি বঙ্গঁবন্ধু কন্যা জনমানুষের নেত্রী তাই আমরা আমাদের সমস্যা গুলো সমাধানের প্রত্যাশায় আপনার সমীপে তুলে ধরছি। আমরা বিশ্বাস করি আপনার নেতৃত্বে পদ্মা সেতুর মত বিশাল কর্মযজ্ঞ বিশ্বের সমস্থ পরাশক্তির তীব্র বিরোধীতা সত্বেও যখন সাফল্যের দ্বার প্রান্ত তখন আমাদের এই ক্ষুদ্র চাওয়া গুলো পূরণে আপনার সদয় দৃষ্টিই যথেষ্ট। পরিশেষে আমরা আপনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 4 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ