ইসি কথা দিয়ে চিড়া ভেজাতে চেয়েছেন : রিজভী

প্রকাশিত: 7:16 AM, December 25, 2015

ইসি কথা দিয়ে চিড়া ভেজাতে চেয়েছেন : রিজভী

182351eid_a_milপ্রান্ত ডেস্ক:নির্বাচন কমিশন কথা দিয়ে চিড়া ভেজাতে চেয়েছেন কিন্ত চিড়া ভিজছে না। নির্বাচনী এলাকাগুলোতে নির্দেশনা মানছেন না ওসি/ডিসিরা। কারণ, সরকারের স্নেহমাখা সন্ত্রাসীদের তাণ্ডব নিয়ন্ত্রণ করতে সাহস পাচ্ছেন না স্থানীয় প্রশাসন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসিচব রুহুল কবির রিজভী। আজ বৃহস্পতিবার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। রিজভী বলেন, আমরা আবারো নির্বাচন কমিশনকে দৃঢ়তার সাথে বলতে চাই- সরকারদলীয় প্রার্থীর পক্ষে পক্ষপাতিত্ব না করার জন্য, প্রশাসনযন্ত্রকে নিরপেক্ষ রাখতে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়ে সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করুন। তিনি বলেন, আসন্ন পৌর নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে বিরোধী প্রার্থীর এজেন্টদের নিরাপত্তা এবং ভোটাররা যাতে ইচ্ছামতো ভোট দিতে পারে তার গ্যারান্টি দিতে হবে। এ ব্যবস্থা না করা হলে মীরজাফরের মতো বিশ্বাসঘাতকতার তকমা সুদীর্ঘকাল ধরে বয়ে বেড়াতে হবে। আমরা আবারও নির্বাচন কমিশনকে দৃঢ়তার সঙ্গে বলতে চাই, সরকারদলীয় প্রার্থীর পক্ষে পক্ষপাতিত্ব না করার জন্য, প্রশাসনযন্ত্রকে নিরপেক্ষ রাখতে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়ে সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করুন। অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে জনমনে আস্থা সৃষ্টি করুন। নৈরাজ্যময় দেশ এখন অজানা আগামীকালের পথে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তীব্রতম করা হয়েছে সন্ত্রাস। ধানের শীষের প্রার্থীর প্রচারে লিপ্ত মাইক ভেঙে দেওয়া হচ্ছে, পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হচ্ছে, পথসভার স্থানে ককটেল বিস্ফোরণ করে হামলা চালানো হচ্ছে, মুখোশ পরে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী ও তার কর্মীদেরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা বা হত্যার উদ্দেশ্যে গুরুতর জখম করা হচ্ছে। বিভিন্ন পৌর এলাকায় শাসকদলের নেতারা বলে বেড়াচ্ছেন- যে ভোট গ্রহণই হোক না কেন গণনা হবে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে, পাশাপাশি ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক ভীতি সৃষ্টি করার জন্য নানা ধরনের হুমকি ও উসকানিমূলক কথাবার্তাও বলা হচ্ছে। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোয়াজ্জম হোসেন আলাল, হাবিবুর রহমান হাবিব, মোহাম্মদ শাহাজান মিয়া প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 18 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ