র‌্যাব পরিচয়ে ছাত্রলীগ নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ, তিনদিন পর মুক্তিপণ দাবি

প্রকাশিত: 12:23 PM, December 12, 2015

NBপ্রান্ত ডেস্ক:‘র‌্যাব পরিচয়ে’ রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা সাইফুজ্জামান সোহাগকে অপরহরণের তিনদিন পর অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন করে তাকে মুক্তি দিতে চাঁদা দাবি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার। শনিবার বিকেলে সোহাগের শ্বশুর ও রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স আ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক শেখ রেজাউর রহমান সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান, দুপুর ১টার দিকে আমার কাছে একটি অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন আসে। ফোন রিসিভ করলে আমাকে বলা হয় আপনার জামাইকে যদি সুস্থভাবে ফিরে পেতে চান তাহলে আমাদেরকে কিছু খরচ-পাতি দিতে হবে। সে ভালো আছে কোনো সমস্য নেই।’
‘কতো টাকা দেওয়া লাগবে জিজ্ঞাসা করলে ওপার থেকে বলা হয়, আমরা ফোন দিয়ে যেখানে যেতে বলব; সেখানে গেলেই তাকে অক্ষত অবস্থায় পাওয়া যাবে। টাকার পরিমান তখন বলে দিব কত টাকা নিতে হবে। তবে ওই ফোন নম্বরটি এখন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।’
তিনি আরো জানান, ‘ এ ঘটনার প্রায় দেড় ঘন্টা পর আমার কাছে আরেকটি অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন আসে। সেখানে আমাকে বলা হয়, আমার জামাই পিরোজপুরের একটি হাসপাতালে আছে। পরে আমরা পুলিশের সহায়তায় ওই হাসপাতালে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি বিষয়টি মিথ্যা। বিষয়টি আমরা র‌্যাব ও পুলিশকে জানিয়েছি। ওই নম্বরটিও এখন বন্ধ আছে। তাদেরকে মোবাইল নম্বরটি দিয়ে মামলা করবো।’
প্রসঙ্গত, অপহরণের শিকার মো. সাইফুজ্জামান সোহাগ রুয়েটের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী এবং রুয়েট শাখা ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক। তিনি রাজশাহী নগরীর রাজপাড়ার তেরোখাদিয়া এলাকার বাসিন্দা। গত বুধবার দিবাগত রাত তিনটার সময় ১০/১৫জনের একটি দল সাদা মাইক্রোবাসে এসে র‌্যাব পরিচয়ে তাকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 14 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ