বিশ্বের সেরা সুন্দরীদের নিয়ে বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগীতা

প্রকাশিত: 9:06 AM, October 20, 2015

whatপ্রান্তডেস্ক:বিশ্ব সুন্দরী শুধু রূপে নয়, বরং বিশ্ব সুন্দরী-দের নির্বাচিত করা হয় শিক্ষা দীক্ষা, আচার-ব্যবহার, স্মার্টনেস, বুদ্ধি, বিচার-বিবেচনাসহ অনেক বিষয়ে অনেকগুলো পরীক্ষার মাধ্যমে। সারা বিশ্বের পুরুষসহ মহিলাদের এই বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগীতা নিয়ে রয়েছে অনেক আগ্রহ। তাই মুক্তমঞ্চ.কম বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগীতা নিয়ে একটি বিশেষ প্রতিবেদন পেশ করছেঃ বিশ্ব সুন্দরী নিয়ে সারা বিশ্বে মূলত দুটি প্রতিষ্ঠান কাজ করে এবং দুটি ভিন্ন ভিন্ন বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। (১) মিস ওয়ার্ল্ড (২) মিস ইউনিভার্স। আজকে এই দুই প্রতিযোগীতা নিয়ে সংক্ষেপে আলোচনা করা হবে। প্রতিবছর একবার করে সারা বিশ্বের সেরা সেরা সুন্দরী এবং স্মার্ট অবিবাহিত মেয়েদের নিয়ে পৃথিবীর ভিন্ন ভিন্ন যায়গায় এই বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়।
মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগীতা
মিস ইউনিভার্স বার্ষিকভিত্তিতে আয়োজিত আন্তর্জাতিক সৌন্দর্য্য প্রতিযোগিতাবিশেষ। এ প্রতিযোগিতাটি মিস ইউনিভার্স সংস্থা কর্তৃক পরিচালিত হয়ে থাকে। ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রতিষ্ঠিত পোষাক প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান প্যাসিফিক মিলসের উদ্যোগে ১৯৫২ সালে প্রতিষ্ঠিত এ প্রতিযোগিতাটি অদ্যাবধি নিয়মিতভাবে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। প্রথমে গোল্ডেন লেডি’র অঙ্গ সংগঠন কেসার-রথ এবং পরবর্তীতে গাল্ফ এন্ড ওয়েস্টার্ন ইন্ডাস্ট্রিজ কর্তপক্ষের মাধ্যমে প্রতিযোগিতাটি পরিচালিত হয়েছিল। ১৯৯৬ সাল থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রিয়াল-এস্টেট ব্যবসায়ী, টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব এবং লেখক ডোনাল্ড ট্রাম্প এর দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। মিস ইউনিভার্স অর্গেনাইজেশন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ১৯৯৮ সালেমিস ইউনিভার্স, ইনকর্পোরেট থেকে মিস ইউনিভার্সে রূপান্তর করা হয়।
পাশাপাশি ঐ একই বছর ক্যালিফোর্নিয়ারলস এঞ্জেলেস থেকে নিউইয়র্ক সিটিতে সংস্থার সদর দপ্তর স্থানান্তর করা হয়। ডোনাল্ড ট্রাম্প নতুন একদল পেশাদার কর্মীকে প্রতিযোগিতা আয়োজনের লক্ষ্যে দায়িত্ব দেন। এর প্রধান ছিলেন মলি মাইলস নামীয় নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং সভাপতি ছিলেন মরিন রিডি। প্রতিযোগিতার উত্তরণে শ্লোগানরূপে আজকের জন্য নতুনরূপে শব্দগুচ্ছ ব্যবহার করা হয়। ১৯৯৮ সালে মিস ইউনিভার্সের লোগো উন্মোচন করা হয়। ‘দি ওম্যান উইদ স্টারস’ – শিরোনামীয় এ লোগোয় বৈশ্বিক পরিমণ্ডলে নারীর সৌন্দর্য্য এবং দায়িত্ব-কর্তব্য উপস্থাপনার কথা বলা হয়েছে। বর্তমান মিস ইউনিভার্স পদবী ধারণ করে আছেন কলম্বিয়ার পাওলিনা ভেগা। তিনি ২০১৩ সালের সাবেক মিস ইউনিভার্স ভেনেজুয়েলার মারিয়া গ্যাব্রিয়েলা ইসলার’র কাছ থেকে এ মুকুট লাভ করেন।
মিস ওয়ার্ল্ড
মিস ওয়ার্ল্ড হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে পুরনো ও প্রধান আন্তর্জাতিক সুন্দরী প্রতিযোগিতা। যুক্তরাজ্যের এরিক মোর্লে ১৯৫১ সালে এই প্রতিযোগিতাটির গোড়াপত্তন করেছেন ও অদ্যাবধি ধারাবাহিকভাবে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। ২০০০ সালে এরিকের মৃত্যুর পর থেকে তাঁর স্ত্রী জুলিয়া মোর্লেপ্রতিযোগিতার প্রধান হিসেবে দায়িত্বে নিয়োজিত আছেন। মিস ওয়ার্ল্ড সুন্দরী প্রতিযোগিতার পাশাপাশি এটির প্রতিপক্ষ হিসেবে মিস ইউনিভার্স এবং ‘মিস আর্থ’ সুন্দরী প্রতিযোগিতা বিশ্বে প্রচলিত রয়েছে। তবে, মিস ওয়ার্ল্ড সুন্দরী প্রতিযোগিতাটিই বর্তমান বিশ্বে সৌন্দর্যপ্রিয় জনগোষ্ঠীর কাছে সবচেয়ে বেশী প্রচারিত ও প্রচলিত সুন্দরী প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতা আয়োজনকারী কর্তৃপক্ষ হিসেবে মিস ওয়ার্ল্ড অর্গেনাইজেশন সুন্দরী প্রতিযোগিতার বিজয়ীকে পরবর্তী এক বছরের জন্য ভ্রমণ ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যয়ভার প্রদান করে থাকে। ঐতিহ্যগতভাবে মিস ওয়ার্ল্ড পদবীধারী নারীকে ঐ সময়কালে লন্ডনে অবস্থান করতে হয়। বর্তমান (২০১৪ইং) মিস ওয়ার্ল্ড হচ্ছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সুন্দরী রোলেন স্ট্রস।
এছাড়াও মিস আর্থ নামে আরেকটি বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগীতা হয়। তবে সেই প্রতিযোগীতা অন্য দুই মিস ওয়ার্ল্ড এবং মিস ইউনিভার্সকে ছাপিয়ে যেতে পারেনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 18 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ