‘সততাই আমার শক্তি, সততাই আমার সাহস’

প্রকাশিত: 7:01 PM, January 27, 2016

‘সততাই আমার শক্তি, সততাই আমার সাহস’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, কেউ যদি ব্যক্তি স্বার্থে দেশের সর্বনাশ করতে চায়, দেশের মানুষের স্বার্থ না দেখে- তাদের করুণা করা ছাড়া আর কিছু করার নেই। এটা ঠিক যে, কোন বিশেষ ব্যক্তির স্বার্থের কারণে আমাকে অনেক সময় অনেক থ্রেট (হুমকি) করা হয়েছিল। একজন বিশেষ ব্যক্তির একটা এমডি (ব্যবস্থাপনা পরিচালক) পদ না থাকলে পদ্মা সেতুর অর্থায়ন বন্ধ করা হবে। এটা সরাসরিও বলা হয়েছে। এই ধরণের কথা আমাকে শুনতে হয়েছে। সেগুলো আমি কিছু বলতে চাই না। আসলে মানুষের যদি দেশপ্রেম না থাকে, জনগণের প্রতি তাদের দায়িত্ববোধ না থাকে, কেউ যদি সম্পূর্ণ ব্যক্তিস্বার্থে অন্ধ থাকে- তার বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেওয়া যাবে তা জনগণই বিচার করবে। আমি সেই বিচারের ভার জনগণের উপরেই ছেড়ে দিলাম। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে গতকাল সংসদ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত ৩০ মিনিটের প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এসব কথা বলেন। সম্প্রতি মার্কিন জরিপ সংস্থা আইআরআই-এর রিপোর্টের কথা উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইমাম শত বাধা উপেক্ষা করে দেশের এমন অভূতপূর্ব উন্নয়নের শক্তি ও সাহস কোথায় থেকে পান? জানতে চাইলে জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সততাই আমার শক্তি, সততাই আমার সাহস। আমার জীবনের রাজনীতির একটাই লক্ষ্যে যে মানুষের জন্য বঙ্গবন্ধু সারা জীবন সংগ্রাম করেছে। এই মানুষের অর্থনীতিক পরিবর্তনের জন্য পদক্ষেপ নেব। ছোটবেলা থেকে আমরা যা দেখেছি সন্তান হিসেবে তা আমাদের পালনীয়। আমি মনে করি, ক্ষমতা জনগণের জন্য কিছু করার সুযোগ। তিনি বলেন, নিজে কি পেলাম সেটা কখনও দেখি না। আমরা কখনো এটা চিন্তাও করি না, ভবিষ্যতেও করবো না। তিনি বলেন, আমাদের ছেলে মেয়েদের বলেছি উপযুক্ত শিক্ষায় শিক্ষিত হও, শিক্ষায় বড় সম্পদ।  নিজের জন্য বা সন্তানদের জন্য কি রেখে গেলাম- সেটা কখনো দেখি না। দেশের মানুষের জন্য কী করতে পারলাম, তাদের কী দিয়ে যেতে পারলাম- সেটাই আমরা রাজনীতি। আর জনগণের চিন্তা করি বলেই জনগণই আমার শক্তি। এদেশের মানুষের শক্তিতেই আমার শক্তি। দেশের মানুষের ওপর আমার পূর্ণ আস্থা আছে বলেই দেশকে সবদিক থেকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারছি। এ সময় বিরোধী দলের ভূমিকার প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংসদেও এখন পরিবর্তন এসেছে। বর্তমান বিরোধী দল (জাতীয় পার্টি) শুধু সরকারের সমালোচনাও করছে না, সরকারের ভাল কাজেরও প্রশংসা করছে। আজ সংসদে তারই প্রতিফলন ঘটেছে। সংসদীয় গণতন্ত্রে এটিই হওয়া উচিত।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সংবাদটি 18 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ